আইপিএলের ইতিহাসে দ্রুত হাফসেঞ্চুরি করেছেন এই ৫ ব্যাটসম্যান; তালিকায় আছেন ২ জন বোলার ও !!

অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটার প্যাট কামিন্স আইপিএলের 15 তম আসরে খেলতে নেমেই ব্যাট হাতে তাণ্ডব চালালো। তিনি যৌথভাবে আইপিএলের ইতিহাসে দ্রুততম হাফ সেঞ্চুরি করলেন। এদিন কলকাতা নাইট রাইডার্স এর প্রথমদিকের ব্যাটসম্যানরা পরাস্ত হলেও পাট কামিন্স শেষের দিকে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত ব্যাটিং করে দলকের ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। দাবি করা হচ্ছে প্যাট কামিন্স-এর এই ইনিংসটি আইপিএলের ইতিহাসে অন্যতম সেরা একটি ইনিংস। চলুন দেখে নেওয়া যাক আইপিএলের ইতিহাসে কোন একজন ব্যাটসম্যান সবচেয়ে দ্রুততম হাফসেঞ্চুরি করেছেন:-

১) কে এল রাহুল- 14 বল

ভারতীয় ব্যাটসম্যান কে এল রাহুলের দখলে রয়েছে আইপিএলের ইতিহাসে দ্রুততম হাফসেঞ্চুরির রেকর্ড। পাঞ্জাবের হয়ে দিল্লি ক্যাপিটালস এর বিরুদ্ধে ওপেনিং করতে হবে 2018 সালে 14 বলে অর্ধশত রান করেন তিনি। 6 টি চার এবং 4 টি ছয় এর মাধ্যমে 318 স্ট্রাইক রেটে 51 রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন তিনি।

২) প্যাট কামিন্স:- 14 বল

Pat, , আইপিএলের ইতিহাসে দ্রুত হাফসেঞ্চুরি করেছেন এই ৫ ব্যাটসম্যান; তালিকায় আছেন ২ জন বোলার ও !!

আইপিএলের ইতিহাসে দ্রুততম হাফ সেঞ্চুরি করার তালিকায় যৌথভাবে প্রথম স্থান অধিকার করে রয়েছে নঅস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার প্যাট কামিন্স। এদিন মুম্বাইয়ের বিরুদ্ধে 373 স্ট্রাইক রেটে 15 বলে 56 রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন তিনি।

৩) ইউসুফ পাঠান:- 15 বল

2014 সালের সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের বিরুদ্ধে কলকাতা নাইট রাইডার্স এর হয়ে ইউসুফ পাঠান 15 বলে দ্রুততম অর্ধশতরান করেছিলেন। 5 টি চার এবং 7 টি ছয়ের মাধ্যমে 327 স্ট্রাইকরেটে 72 রানের একটি দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন।

৪) সুনীল নারিন:- 15 বল

Sunil Narine, , আইপিএলের ইতিহাসে দ্রুত হাফসেঞ্চুরি করেছেন এই ৫ ব্যাটসম্যান; তালিকায় আছেন ২ জন বোলার ও !!

আইপিএল এর দ্রুততম হাফ সেঞ্চুরি করার তালিকায় রয়েছেন সুনীল নারিনও। 2017 সালে কলকাতা নাইট রাইডার্স এর হয়ে রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের বিরুদ্ধে ওপেন করতে নেমে মাত্র 15 বলে অর্ধশত রান করেন তিনি। সেদিন তিনি 317 স্ট্রাইক রেট 54 রান করেন।

৫) সুরেশ রায়না:- 16 বল

2014 আইপিএলের দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিপক্ষে সুরেশ রায়না একটি দুর্ধর্ষ ইনিংস খেলেছিলেন। আইপিএলের ইতিহাসে সেরা ইনিংস হিসেবে বিবেচিত হয় ওই ইনিংসটি। এই ম্যাচে তিনি 6 টি ছক্কা ও 12টি বাউন্ডারির সাহায্যে 348 স্ট্রাইক রেটে মাত্র 25 বলে 87 রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেছিলেন।