”বন্ধ হয়ে যেতে পারে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড” এশিয়া কাপ বিবাদ নিয়ে রামিজ রাজার এমন একটি বক্তব্য ভিডিওতে ভাইরাল

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (BCCI) সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে ভারতীয় ক্রিকেট দল পাকিস্তানে অনুষ্ঠিত হওয়া পরবর্তী এশিয়া কাপে অংশগ্রহণ করবে না। এই সিদ্ধান্ত পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের ভিতরে থরহরিকম্প বাঁধিয়ে দিয়েছে। ভারত থেকে এমন ইঙ্গিত পাওয়ার পর পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড বাধ্য হয়ে বলেছে যে ভারত যদি এশিয়া কাপে অংশগ্রহণ না করে তবে পাকিস্তান ও ২০২৩ সালে ভারতে অনুষ্ঠিত হওয়া বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করবে না।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সচিব জয় শাহ জানিয়েছেন, “যেহেতু আমরা পাকিস্তানে যেতে পারবো না এবং ওরাও ভারতে আসতে পারবে না সেহেতু নিরপেক্ষ স্থানে এশিয়া কাপ অনুষ্ঠিত হবে। এটাই আমি এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের সভাপতি কে জানিয়েছে। এর আগেও তো এশিয়া কাপ নিরপেক্ষ স্থানে অনুষ্ঠিত হয়েছে।”

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড সচিব জয় শাহের এই ঘোষণা একেবারেই ভালো চোখে দেখছে না পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। পাকিস্তান বোর্ডের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, “পরবর্তী এশিয়া কাপ নিরপেক্ষ স্থানে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা শুনে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড বিস্মিত এবং হতাশ। এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে কোন আলোচনাই করেনি। এই ধরনের সিদ্ধান্ত এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল এবং ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল কে আলাদা করে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট।”

সম্প্রতি একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি রামিজ রাজা বলেছেন, “পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের ৫০ শতাংশ খরচা চলে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট বোর্ড ফান্ডের থেকে। আইসিসির ফান্ড হলো এমন একটি সংস্থা যেটি তাদের আয় হওয়া সমস্ত টাকা নিজেদের সদস্যদের মধ্যে ভাগ করে দেয়। ভারতের ক্রিকেট বাজার থেকে আইসিসি ৯০ শতাংশ আয় করে। এক রকম বলতে গেলে ভারতের থেকে আয় হওয়া টাকায় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড চলছে। কাল যদি ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলে দেয় আমরা পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে আর টাকা দেবো না তাহলে পাকিস্তান বোর্ড বন্ধ হয়ে যেতে পারে।”

এদিকে দুই ক্রিকেট বোর্ডের বাকবিতণ্ডা সমস্যার মধ্যে আগামী রবিবার টি-টোয়েন্টি ২০২২ বিশ্বকাপের মঞ্চে ভারত মুখোমুখি হতে চলেছে পাকিস্তানের সঙ্গে। এই ম্যাচটি দেখার অপেক্ষায় সকল ক্রিকেটপ্রেমী মুখিয়ে রয়েছে।