লেটেস্ট খবরসাফল্যের খবর শিক্ষার খবরঅফবিটটেক নিউজ

জিম্বাবোয়ের কাছে হারতেই মাথা খারাপ হল মোহাম্মদ আমিরের, নির্বাচকদের বললেন ‘সস্তার লোক”!!

WhatsApp Group   Join Now অস্ট্রেলিয়া আয়োজিত ২০২২ এর টি-টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড কাপে জিম্বাবোয়ের কাছে হারের পর খুব সমালোচিত হচ্ছে পাকিস্তানি দল। এই মুহূর্তে পাকিস্তানের প্রাক্তন ...

Published on:

WhatsApp Group   Join Now

অস্ট্রেলিয়া আয়োজিত ২০২২ এর টি-টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড কাপে জিম্বাবোয়ের কাছে হারের পর খুব সমালোচিত হচ্ছে পাকিস্তানি দল। এই মুহূর্তে পাকিস্তানের প্রাক্তন খেলোয়াড়েরা সমালোচনা করছেন বাবর আজমের দলকে। সেই সঙ্গে তারা একহাত নিচ্ছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকেও। পাকিস্তানের এমন কিছু খেলোয়াড় আছে যাদের সঙ্গে পিসিবির মতপার্থক্য রয়েছে, এই মুহূর্তে তারাও ব্যঙ্গ করেছে দেশের ক্রিকেট বোর্ডকে।

সমালোচকদের তালিকায় প্রথম দিকে রয়েছে মোহাম্মদ আমিরের নাম। টুইটারে তিনি পাকিস্তানি ক্রিকেট দল এবং পিসিবির নির্বাচকদের লক্ষ্য করে একটি পোস্ট করেছেন।এছাড়াও শহীদ আফ্রিদি পাকিস্তানের খেলার সমালোচনা করে এবং জিম্বাবোয়ের পারফরমেন্সকে দুর্দান্ত এবং সেরা বলে অভিহিত করেন।

কী লিখেছেন আমির?

আমির টুইটারে লিখেছেন, “প্রথম দিন থেকে আমি বলে আসছি যে একটি খারাপ নির্বাচন হয়েছে। এখন এর দায় কে নেবে। আমি মনে করি, তথাকথিত চেয়ারম্যান থেকে মুক্তি পাওয়ার সময় এসেছে যিনি পিসিবির ঈশ্বর এবং তথাকথিত প্রধান নির্বাচক।” আমির ছাড়াও শহিদ আফ্রিদিও টুইট করেছেন এবং লিখেছেন যে, “আমি এই হারকে মোটেও অঘটন বলবো না কারণ আপনি যদি ম্যাচটি দেখে থাকেন তাহলে দেখা যাবে জিম্বাবোয়ে প্রথম বল থেকেই দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলেছে। ব্যাটিং পিচে কম স্কোরকে কীভাবে ডিফেন্ড করতে হয় তা তারা দেখিয়েছে। তারা তাদের আবেগ এবং কঠোর পরিশ্রম মাঠে প্রতিফলিত করেছে। জিম্বাবোয়েকে জয়ের জন্য অভিনন্দন।”

জিম্বাবোয়ে প্রথমে ব্যাট করার সময় ছয় ওভারের পাওয়ারপ্লে ভালো ব্যাট করলেও, পাকিস্তানি বোলাররা তাদের পরের ১৪ ওভারে বিশেষ রান করার সুযোগ দেয়নি এবং জিম্বাবোয়েকে ১৩০ রানে সীমাবদ্ধ করে। কিন্তু বল করার সময় জিম্বাবোয়ের বোলাররাও ঠিক একই রকম প্রদর্শন করে। পাওয়ার প্লে তে বাবর আজম এবং রিজওয়ানকে তাড়াতাড়ি আউট করে এবং অন্যান্য ব্যাটসম্যানদেরও চাপে ফেলে দেয়। জিম্বাবোয়ে শেষ ওভারে এক রানে এই ম্যাচ জিতে নেয়। ভারতের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে শেষ বলে পরাজয়ের পর টানা দ্বিতীয় ম্যাচে একইরকমের হারের মুখে পড়ে পাকিস্তান দল। পরপর দুটি ম্যাচ হেরে পাকিস্তানের পক্ষে সেমিফাইনালে ওঠার পথটা কঠিন হয়ে পড়েছে।

About Author