“দীনেশ কার্তিকের জায়গায় ঋষভ পান্থকে চাই, নাহলে বিশ্বকাপ যেতা স্বপ্ন থেকে যাবে” বেফাঁস মন্তব্য করে বসলেন কপিল দেব !!

অস্ট্রেলিয়া আয়োজিত ২০২২ এর বিশ্বকাপে ভারত বনাম পাকিস্তানের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানকে চার উইকেটে পরাজিত করে ভারতীয় দল আত্মবিশ্বাসের সাথে বিশ্বকাপের ক্যাম্পেন শুরু করেছে। দ্বিতীয় ম্যাচে নেদারল্যান্ডস কে ৫৬ রানে পরাজিত করে গ্রুপ তালিকায় শীর্ষে আছে ভারতীয় দল । ভারতীয় দলের পরবর্তী খেলা দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে পার্থ ক্রিকেট গ্রাউন্ডে। প্রথম ম্যাচে ভারতীয় দলের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানদের পরীক্ষা নিয়েছিল পাকিস্তানি পেস বোলারেরা। পাকিস্তানের বোলিং এর সামনে বিরাট কোহলি ও হার্দিক পান্ডিয়া ছাড়া তেমন কাউকে ছন্দে দেখা যায়নি।

ভারতীয় দলের কাছে দক্ষিণ আফ্রিকার ফাস্ট বোলিং খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে। কারণ পার্থের উইকেট পেস বোলারদের জন্য উপকারী। দক্ষিণ আফ্রিকা কাগিসো রাবাডা, এনরিক নকিয়া, ওয়েন পার্নেলদের মত বোলারেরা ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের কাছে চ্যালেঞ্জিং হয়ে উঠবে। তাই ভারতীয় দল দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগেই বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক কপিল দেব দীনেশ কার্তিকের জায়গায় ঋষভ পন্থকে খেলানোর উপদেশ দিয়েছেন।

ঋষভ পান্থকে নিয়ে কপিল দেবের মতামত

কপিল দেব এ বিষয়ে বলেছেন, “দীনেশ কার্তিক তার কাজ যথেষ্ট ভাবে পালন করছেন, কিন্তু দল জিততে গেলে ঋষভ পান্থের মতো প্লেয়ারের প্রয়োজন।  দীনেশ কার্তিক ভালোভাবেই উইকেট কিপিং করছেন , দলে তার কর্তব্য পালন করছেন, কিন্তু একজন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান দলের ক্ষেত্রে খুব উপযোগী। ঋষভ মিডিল অর্ডারে ব্যাটিং করলে দল অনেকটা মজবুত হবে। “

২০২২ বিশ্বকাপে দীনেশ কার্তিকের অবদান

২০২২ এর আইপিএলে দীনেশ কার্তিক দুর্দান্ত ফর্মে ছিলেন সেই সুবাদে উইকেট কিপার তথা ফিনিশার হিসেবে ভারতীয় দলে সুযোগ পেয়ে যায়। ২০২২ এর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মঞ্চেও ফিনিশার এবং উইকেট রক্ষকের ভূমিকায় দেখা যাচ্ছে দীনেশ কার্তিককে। যদিও শেষ দুটি ম্যাচে সেভাবে ব্যাটিং করার সুযোগ পাননি দীনেশ কার্তিক। কিন্তু পাকিস্তানের বিরুদ্ধে একটি সুযোগ এসেছিলো তাও আবার শেষ ওভারে, তিনি চাপের মুখে দলকে ম্যাচ জিতিয়ে ফেরাতে পারেননি। চাপের মুখে তিনি আউট হয়ে যান যার ফলে দলকে সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছিল। এছাড়া নেদারল্যান্ডের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ম্যাচে ব্যাটিং করার সুযোগ পাননি, ম্যাচে কিপিং করার সময় কিছু ভুল করেছিলেন। সুযোগ পাওয়ার পরে যদি দীনেশ আশানুরূপ পারফরমেন্স করতে ব্যর্থ হন তাহলে তার জায়গায় ঋষভ কে দেখা যেতে পারে।

লোকেশ রাহুলকে নিয়ে মন্তব্য

কপিল দেব কে যখন লোকেশ রাহুলের পরিবর্তে ঋষভ পন্থকে খেলানোর কথা জিজ্ঞাসা করা হয়, তখন তিনি তা প্রত্যাখ্যান করে বলেন, “লোকেশ রাহুল খুবই ভালো প্লেয়ার, আপনি ওকে কখনও চাপের মধ্যে  খেলতে দেখবেন  না ,  হ্যাঁ সে দুটি ইনিংসে রান পাননি , সে রান করতে চায় কিন্তু সে করতে পারছে না। সে যখন তখন তার খেলা পরিবর্তন করতে পারে এবং বড় শট খেলতে পারে, তবে আমি চাই সে প্রথম ৮ থেকে ১০ ওভার অন্তত ঝুঁকি না নিয়ে ব্যাটিং করুক। সে যখন পিচের ধারণা পেয়ে যাবে তখন সে ভালোভাবেই খেলা চালাতে পারবে।”