৮৪, ১৩৫, ৫২! বড় মঞ্চে বার বার যে জ্বলে ওঠেন সেই হল বেন স্টোক, পুরস্কার হাতে নিয়ে স্যাম কারেন প্রশংসা ছড়ালেন এই ইংরেজ তারকার

২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের (T20 World Cup 2022) উত্তেজনা প্রায় শেষ। স্যাম কারেন ফাইনালের সেরা পুরস্কার পেলেন। ‘ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ’ ও ‘ম্যান অব দ্যা সিরিজ’ হয়েছেন এই প্রতিযোগিতায়। তবে পুরস্কার হাতে নিয়ে তিনি বললেন, “এই ‘ম্যান অফ দ্যা ম্যাচের’ পুরস্কার আমার প্রাপ্য না। এই পুরস্কার ম্যাচ (England vs Pakistan Finalmatch) জেতানো অর্ধ-শত রান করা বেন স্টোকের প্রাপ্য ছিল।” ও একজন বড় মাপের ক্রিকেটার, ওর অভিজ্ঞতা বড় ম্যাচের জন্য অনন্য।”

তবে স্যাম কারেন (Sam Curran) ভুল কিছু বলেনি। সত্যিই বেন স্টোক বড় মাপের ক্রিকেটার। ওর বিশাল অবদান আছে শিরোপা জেতার পিছনে। ভক্তদের মুগ্ধ করেছে তার ম্যাচ জেতানো ইনিংসটি। শিরোপা জেতানোর মূল ভূমিকায় ছিল তার ৫২ রানের অপরাজিত ইনিংস। অ্যালেক্স হেলস, ফিলিপ সল্ট এবং অধিনায়ক জর্জ বাটলারের মতো মূল্যবান উইকেট পাওয়ার প্লেতে পড়ে গিয়েছিল, তখন টেস্ট অধিনায়ক বেন স্টোক ম্যাচের গুরুদায়িত্ব পালন করেন। এই ম্যাচে স্টোকের ইনিংসকে স্যাম কারেন বড় করে দেখেছেন।

যখন একের পর এক পাকিস্তানি বোলারের কাছে ইংল্যান্ড ব্যাটসম্যানরা পরাস্ত হচ্ছিলেন তখন বেন স্টোক ব্যাট হাতে থিতু হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন। যদিও রানের টার্গেট বেশি না হওয়ার জন্য তিনিও বেশি তাড়াহুড়ো করেননি। তিনি ৪৯ বলে ৫২ রানের একটি ঝকঝকে ইনিংস খেলেন। তার ইনিংসটিতে পাঁচটি চার ও একটি ছক্কা দিয়ে সাজানো ছিল। যার জন্য ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খুব সহজেই ইংল্যান্ড জিতে নিল।

এবার ২০১৯ সালের ঘটনায় আসি। ২০১৯ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপ জয়ের পিছনে প্রচুর ভূমিকা ছিল বেন স্টোকের। সেখানে ফাইনাল ম্যাচে তিনি ৮৪ রানের ইনিংস খেলেন। ম্যাচ জিতে সাহায্য করেছিল তার এই ইনিংসটি। ফাইনালে ইংল্যান্ড কাপ নিয়েছিল নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে। স্টোকের দল ট্রফি নিয়ে গিয়েছিলেন। এই দিনেই তিনি দলকে ট্রফি জিতিয়ে অবসর নিয়েছিলেন একদিনের ক্রিকেট থেকে।

তাই শুধু নয়, ইংল্যান্ডকে তিনি অ্যাশেজ কাপও জিতিয়েছেন। ২০১৯ সালে তিনি ১৩৫ রানের ইনিংস অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে খেলে কাপের নায়ক হয়ে উঠেছিলেন। ভক্তরা তার এই ইনিংস ভুলতে পারবে না। ওয়াটসন অস্ট্রেলিয়ার সেই ম্যাচ হেরে আফসোস করে বলেছিলেন, “ও যদি আমাদের দলে হতো, তাহলে আজ এই অবস্থা হতো না।” বহুবার প্রমাণ পাওয়া গেছে যে তিনি একজন বড় মঞ্চের প্লেয়ার। তিনি আরো একবার এই বিশ্বকাপ জিতে প্রমাণ করে দিলেন যে তিনি সত্যিই বড় মাপের খেলোয়াড়।