লেটেস্ট খবরসাফল্যের খবর শিক্ষার খবরঅফবিটটেক নিউজ

আইসিসির বিচারে ওয়ানডের বর্ষসেরা ক্রিকেটার হয়েছিলেন যে ৩ ভারতীয় খেলোয়াড় !!

WhatsApp Group   Join Now আইসিসি বর্ষসেরা ক্রিকেটার চালু করে ২০০৪ সালে। সেই থেকেই কোন না কোন খেলোয়াড় প্রতিবছর বর্ষসেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হন তার পারফরম্যান্সের ...

Updated on:

WhatsApp Group   Join Now

আইসিসি বর্ষসেরা ক্রিকেটার চালু করে ২০০৪ সালে। সেই থেকেই কোন না কোন খেলোয়াড় প্রতিবছর বর্ষসেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হন তার পারফরম্যান্সের বিচারে। ২০২১ সালে পাকিস্তানি অধিনায়ক বাবর আজম বর্ষসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার নির্বাচিত হয়েছেন। তবে বিরাট কোহলি ও এবি ডি ভিলিয়ার্স উভয়েই এই কৃতিত্ব অর্জন করেন সর্বোচ্চ ৩ বার করে। তিন ভারতীয় খেলোয়াড়ের কথা এই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যারা আইসিসির বিচারে নির্বাচিত হয়েছিলেন বর্ষসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার।

১. মহেন্দ্র সিং ধোনি:

২০০৮ ও ২০০৯ সালের প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার হয়েছিলেন দু’বার। তিনি জীবনের সেরা ফর্মে ছিলেন এই দুটি বছরে। পরিসংখানের কথা বলতে গেলে, ২০০৮ সালে ধোনি ২৬ ইনিংসে ১০৯৭ রান করেন ৫৭.৭৪ গড়ে। এরপর ২০০৯ সালে ১১৯৮ রান করেছিলেন ২৪ ইনিংসে ৭০.৪৭ গড়ে। ধোনির ব্যাট থেকে এই দুই বছরে মোট ৩টি সেঞ্চুরি ও ১৭ টি হাফসেঞ্চুরি এসেছিল।

২. বিরাট কোহলি:

আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার নির্বাচিত হয়েছিলেন প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি সর্বোচ্চ ৩ বার। ২০১২ সালে বিরাট কোহলি প্রথমবার এবং ২০১৭ ও ২০১৮ সালে এই কৃতিত্ব দুবার অর্জন করেছিলেন। পরিসংখ্যানের কথা বললে, ২০১২ সালে বিরাট কোহলি ১৭ ইনিংসে ১০২৬ রান করেন ৬৮.৪০ গড়ে। এরপর ২০১৭ সালে ১৪৬০ রান করেন ২৬ ইনিংসে ও ৭৬.৮৪ গড়ে এবং তিনি ২০১৮ সালে ১৪ ইনিংসে ১২০২ রান করেছিলেন ১৩৩.৫৬ গড়ে । এই তিন বছরে ১৭টি সেঞ্চুরি ও ১৩টি হাফ সেঞ্চুরি এসেছিল কোহলির ব্যাট থেকে।

৩. রোহিত শর্মা:

আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ক্রিকেটে রোহিত শর্মা তিনটি ডাবল সেঞ্চুরির মালিক আইসিসির বিচারে ২০১৯ সালে বর্ষসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার হয়েছিলেন। এই বছরে বর্তমান ভারতীয় অধিনায়ক অসাধারন ফর্মে ছিলেন। তিনি পাঁচটি সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন ওই বছরের ওয়ানডে বিশ্বকাপে। পরিসংখ্যান হলো, রোহিত শর্মা ২০১৯ সালে ২৭ ইনিংসে ১৪৯০ রান করেছিলেন ৫৬.৩১ গড়ে। তার ব্যাট থেকে এই বছরে মোট ৭টি সেঞ্চুরি ও ৬টি হাফ সেঞ্চুরি এসেছিল।

About Author