“২০২৩-এ ভারতে এসেই বিশ্বকাপ জিতবো” – বিশ্বকাপের ফাইনালে পরাজয়ের পর হুঙ্কার শোয়েব আখতারের !!

বিশ্বকাপের মঞ্চে ভালো ক্রিকেট খেলেই পাকিস্তান দল ফাইনালে প্রবেশ করেছিল তবে এই ফাইনালে রাস্তাটা তাদের জন্য মোটেও সহজ ছিল না, ভারতের কাছে প্রথম ম্যাচেই পরাজয় এবং জিম্বাবুয়ের কাছে দ্বিতীয় ম্যাচে পরাজিত হয়ে রীতিমতন পাকিস্তান দল টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গিয়েছিল। তবে ভাগ্য ছিল শুভ সন্ধ্যা। সেজন্যই একেবারে শেষ দিনের বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে পাকিস্তান দল প্রবেশ করে। সেমিফাইনালে পাকিস্তান দলের সাথে সাক্ষাৎ হয় গতবারের ফাইনালে নিউজিল্যান্ডের তবে পাঁচ উইকেটে নিউজিল্যান্ডকে পরাস্ত করে ফাইনালে পৌঁছে যায় পাকিস্তান দল।

অন্যদিকে ভারত ও ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় সেমিফাইনাল ম্যাচে ইংল্যান্ড এর কাছে ভারতীয় দল ১০ উইকেটে পরাজিত হয় সে কারণেই ফাইনালে ইংল্যান্ড বনাম পাকিস্তান প্রবেশ করে। ক্রিকেট বল আশা করেছিল যে ১৯৯২ সালে ঘটনাটি আরো একবার ঘটবে অর্থাৎ ১৯৯২ সালে পাকিস্তানের সাথে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে যা হয়েছিল ঠিক তেমনটাই ২০২২ সালে ঘটনায় ঘটছিল, ফলে সবাই আশা করেছিল বিশ্বকাপ পাকিস্তান জিতবে বলে, তবে ইংরেজ বাহিনী সেই ঘটনা ঘটতে দিল না। পাঁচ উইকেটে পাকিস্তান দলকে পরাস্ত করে ইংল্যান্ড দল দ্বিতীয়বারের জন্য বিশ্বকাপ জিতল, ইংল্যান্ড দলকে বেন স্টোকসের লড়াকু উইনিংস জিতের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়।

ম্যাচ শেষে পাকিস্তান দলকে শোয়েব আখতার তাদের এই পারফরমেন্সের জন্য বাহবা জানিয়েছেন, এ বিষয়ে তিনি মন্তব্য করে বলেছেন, “পাকিস্তান বিশ্বকাপে হেরেছে কিন্তু আপনারা (পাকিস্তানি প্লেয়াররা) ভালো খেলেছেন। রিতিমতন বিশ্বকাপের বাইরে চলে গিয়েও আপনারা ফাইনাল খেলেছেন। পাকিস্তানি বোলাররা ভালো পারফরমেন্স করেছে। আপনারা পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে দুর্দান্ত কাজ করেছেন। ভাগ্য আসলেই একটি ফ্যাক্টর ছিল, কিন্তু তারা (ইংল্যান্ড দল) ভালো খেলে ফাইনালে উঠেছিল।”

শোয়েব আখতার গতকালের ম্যাচের হার নিয়ে মন্তব্য করে বলেছেন, “কোনো ব্যাপার নয়, শাহীনের চোট পাওয়াটাই খেলার টার্নিং পয়েন্ট ছিল, কিন্তু আমাদের মাথা নিচু করলে হবে না। বেন স্টোকস ২০১৬ সালে চার ছক্কা খেয়েছিল এবং ইংল্যান্ডের হয়ে বিশ্বকাপ হেরেছিলেন। কিন্তু তিনিই ২০২২ সালে তার সেই কঠিন স্বপ্ন থেকে মুক্তি পেলেন এবং তার দলের হয়ে ম্যাচ জেতালেন।” শোয়েব পাকিস্তান দলকে নিয়ে আশাবাদী, “আমি আপনাদের (পাকিস্তান ক্রিকেট দল) সাথে দাঁড়িয়ে আছি এবং চিন্তার কিছু নেই। আপনারা সত্যিই ভালো খেলেছ। আমি ব্যাথা পেয়েছি, হতাশ ও হয়েছি, তবে সব ঠিক আছে, আমরা আপনাদের পাশে থাকব। আমরা ভারতেই বিশ্বকাপ ওঠাবো।”