FIFA World Cup Final 2022: ম্যাচ জেতার পরে গোলপোস্টের জাল কেন কেটে পুড়িয়ে দিলেন মেসিরা?

ফুটবল বিশ্বকাপে ইতিহাস তৈরি হল। আর্জেন্টিনায় ইতিহাস তৈরি হল। আর্জেন্টিনা একাদশ ইতিহাস তৈরি করল। লিও মেসি ইতিহাস তৈরি করলেন। আর এহেন ইতিহাসের স্মারক রক্ষার ক্ষেত্রেও আর্জেন্টিনীয় ফুটবলাররা ইতিহাস তৈরি করলেন। তারা গোলপোস্টের জাল কেটে পুড়িয়ে সাথে নিয়ে গেল রুদ্ধশ্বাস ফাইনাল ম্যাচের পরে। যে পোস্ট থেকে আর্জেন্টিনা ম্যাচের শেষে টাইব্রেকার জিতেছিল, মেসির আর সেই দিকের পোস্টে জাল কেটে পুড়িয়ে সাথে নিয়েছেন।

আসলে এটা এক দারুন উদযাপন। আর্জেন্টিনীয়রা একটু কুসংস্কারাচ্ছন্ন বলা হয়ে থাকে। একে অবশ্য ‘কুসংস্কার’ না বলে সংস্কারও বলা চলে। বলা উচিত কিছু সংস্কার আর্জেন্টিনীয়রা মেনে চলেন। যেমন- ওদের নিয়ম হচ্ছে, যে কোন ক্ষেত্রেই শুভ কোন কিছুর উদযাপন যেটা দিয়ে হবে, সেটা উদযাপন শেষে পুড়িয়ে তার ছাইটা সাথে রাখা। ওদের বিশ্বাস ওদের পক্ষে এটা নাকি আদ্যন্ত ভালো,শুভকর। গতকাল, রবিবারও সেটাই হয়েছে। টাইব্রেকারের সময় গতকাল যেদিকের গোলপোস্টে ফ্রান্সের মারা পেনাল্টি শট মার্টিনেজ সেভ করেছিলেন, ওরা সেই দিকের জালটাই ছিঁড়ে নিয়ে গিয়েছে। পরে এটা নিয়ে ফিফা ট্যুইটও করে।

যেহেতু ওদের ফাইনালে এই গোল সেভ-ই জেতায় তাই মনে করছেন আর্জেন্টিনীয় ফুটবলাররা, তাদের সংস্কারের পক্ষে উপযুক্ত হবে এই পোষ্টের জাল পুড়িয়ে সেই সাথে রাখাটা। তাই যেমন ভাবা, তেমন কাজ।