লেটেস্ট খবরসাফল্যের খবর শিক্ষার খবরঅফবিটটেক নিউজ

সৌরভের সঙ্গে ইগোর লড়াইয়েই অধিনায়কত্ব গিয়েছিল বিরাটের ! গোপন ক্যামেরায় ‘ফাঁস’ চেতনের !!

বিরাট কোহলিকে ভারতীয় দলের অধিনায়কত্ব হারাতে হয়েছিল তৎকালীন বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এর সাথে ইগোর লড়াইয়ে। ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রধান নির্বাচক চেতন শর্মাকে এমনটাই বলতে ...

Updated on:

বিরাট কোহলিকে ভারতীয় দলের অধিনায়কত্ব হারাতে হয়েছিল তৎকালীন বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এর সাথে ইগোর লড়াইয়ে। ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রধান নির্বাচক চেতন শর্মাকে এমনটাই বলতে শোনা গেল একটি স্টিং অপারেশনের ভিডিওতে। ওই ভিডিওতে তাকে বলতে শোনা গিয়েছে, “ইগোর লড়াই ছিল বিরাট এবং সৌরভের মধ্যে। বিরাটের নেতৃত্ব সেই কারণেই চলে গিয়েছিল।” তবে আনন্দবাজার অনলাইন জি নিউজের ওই ভিডিওর সত্যতা যাচাই করেনি।

WhatsApp Group   Join Now
Telegram Group   Join Now

২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে বিরাট নিজেই ঘোষণা করেছিলেন কুড়ি ওভারের ক্রিকেটে নেতৃত্ব ছেড়ে দেওয়ার কথা। তাকে একদিনের ক্রিকেটের নেতৃত্ব থেকে পরে সরিয়ে দেওয়া হয়। ২০২২ সালে লাল বলে ক্রিকেটে দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়ে সিরিজ হারার পর বিরাট নিজেই টেস্ট ক্রিকেটে নেতৃত্ব ছেড়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু স্টিং অপারেশনের ওই ভিডিওয় প্রধান নির্বাচক চেতনকে বলতে শোনা গিয়েছে,“ইগোর লড়াই ছিল একটা সৌরভ এবং বিরাটের মধ্যে। এক সময় সৌরভ নেতৃত্ব দিয়েছিলেন ভারতীয় দলকে। সেই সময় নেতা ছিলেন বিরাট। বড় কে তা নিয়ে একটা লড়াই ছিল।”

এক সাংবাদিক বৈঠকে দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট খেলতে যাওয়ার আগে বিরাট বলেছেন যে, তাকে কেউ বাধা দেয়নি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে নেতৃত্ব ছাড়ার সময়। যদিও সৌরভ তার কিছুদিন আগেই জানিয়েছিলেন, নেতৃত্ব না-ছাড়ার জন্য বিরাটকে তিনি নিজে অনুরোধ করেছিলেন। সৌরভ এবং বিরাটের মধ্যে সেই সময় থেকেই ইগোর লড়াই বা সম্পর্কের অবনতি নিয়ে জল্পনা বাড়তে থাকে। যদিও এই নিয়ে দুজনের কেউই প্রকাশ্যে কোন মন্তব্য করেননি। চেতনকে এই প্রসঙ্গ নিয়েও কথা বলতে শোনা যায়।

জি নিউজের গোপন ক্যামেরায় সেই জল্পনাকেই চেতন মান্যতা দিলেন। গোপন ক্যামেরায় তোলা যে ভিডিওটি সামনে এসেছে সেখানে বলতে শোনা গিয়েছে প্রশ্নকর্তাকে, “কে সত্যি বলছে দুজনের মধ্যে?” চেতন জবাবে বলেছেন, “বিরাটকে নেতৃত্ব না ছাড়ার কথা বলেছিল সৌরভ।”

একদিনের নেতৃত্ব থেকে বিরাটকে সরানোর সময় বোর্ড জানিয়েছিল যে, সাদা বলে ক্রিকেটে নেতা হিসাবে তারা একজনকেই রাখতে চায়। কিন্তু এখন হার্দিক পাণ্ড্য টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। রোহিত ৫০ ওভার এবং টেস্ট ক্রিকেটে নেতা। যদিও সেই সিরিজ গুলিতেই হার্দিক নেতৃত্ব দিয়েছেন রোহিত যেখানে খেলেননি। এই প্রসঙ্গে ওই ভিডিওয় চেতনকে বলতে শোনা গিয়েছে, “বিরাটকে সরানোর সময় বলা হয়েছে যে, একজনই সাদা বলের ক্রিকেটে অধিনায়ক থাকবে। কিন্তু হার্দিককে এখন টি-টোয়েন্টি অভিনায়ক করে বোর্ড পরীক্ষানিরীক্ষা করছে।”

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাচক চেতন শর্মা। তিনি এই দায়িত্বে রয়েছেন ২০২০ সালের ডিসেম্বর থেকে। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড ২০২২ সালের নভেম্বরে চেতনকে তার পদ থেকে বরখাস্ত করে। কিন্তু আবার এই বছর বিসিসিআই তাকেই বোর্ডের প্রধান নির্বাচক পদে নির্বাচিত করে।

About Author