শীঘ্রই সুখবর বিসিসিআই থেকে, ভারত টেস্ট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি !!

বিসিসিআই শীঘ্রই টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন বিরাট কোহলিকে সুখবর দিতে পারে। দুই বছর আগে টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন কোচ সঞ্জয় বাঙ্গার বলেছিলেন যে যখন বিরাট টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক ছিলেন তখন টেস্ট দলকে বিরাট কোহলি ভালো দিকে নিয়ে গেছে। ২০১৪ সালে টেস্ট ফরম্যাটে টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়কত্ব গ্রহণ করেন বিরাট। তখন টেস্ট রাঙ্কিংয়ে আমরা সাত নম্বরে ছিলাম যখন আমরা ওয়ানডেতে ছিলাম চার বা পাঁচ নম্বরে। একই সাথে আবারো বিরাট কোহলির হাতে ভারতীয় টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব তুলে দিতে পারে বিসিসিআই।

বিরাট কোহলি কি টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব পাবেন? 

আসলে, টিম ইন্ডিয়াতে ২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পরে অনেক বড় পরিবর্তন দেখা গেছে। একদিকে টি-টোয়েন্টিতে রোহিত শর্মার জায়গায় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড হার্দিক পান্ড্যকে দলের নেতৃত্ব দিয়েছে, অন্যদিকে আবার বিভক্ত অধিনায়কত্বে আস্থা প্রকাশ করেছে বিসিসিআই।

তাই আবারও ভারতীয় টেস্ট দলের নেতৃত্ব দেওয়ার সুযোগ বিরাট কোহলি পেতে পারেন। যদিও এই মুহূর্তে এই প্রেক্ষাপটে বোর্ড কোন আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়নি, তবে টেস্ট ক্রিকেটে যদি রোহিত শর্মাকে ক্রমাগত খারাপ ব্যাটিংয়ের সাথে দুর্বল অধিনায়কত্ব করতে দেখা যায়, তবে দলের নেতৃত্ব ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে পারে বোর্ড। কোহলির কাছে।

রোহিতের টেস্ট-ওডিআই থাকলে হার্দিক টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক হবেন। বিভক্ত অধিনায়কত্বের অধীনে, টেস্ট এবং ওয়ানডেতে রোহিত শর্মা টিম ইন্ডিয়ান নেতৃত্ব দেবেন, আর হার্দিক পান্ডিয়ার হাতে টি-টোয়েন্টি দলের নেতৃত্ব হস্তান্তর করা যেতে পারে। জানা গিয়েছে, বর্তমানে হার্দিক নিউজিল্যান্ড সফরের টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়কত্ব করছেন তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে। এই পরিস্থিতিতে আসন্ন টি-টোয়েন্টি সিরিজে হার্দিক পান্ডিয়া টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক হবেন।