‘বুম বুম আফ্রিদি’-র মেয়ের সঙ্গে বিয়ে সারলেন শাহিন, হাজির বাবর আজমের পাক দল !!

আবারও একবার ২২ গজের বাইরে শাহিন শাহ আফ্রিদি খবরের শিরোনামে। তার সাথে শাহিদ আফ্রিদির মেজো মেয়ে আনশার আফ্রিদির সাথে গত দু’বছর ধরে প্রেম চলছিল। এবার পাকিস্তানের এই বাঁহাতি জোরে বোলার প্রেমিকার সাথে বিয়েটাও সেরে ফেললেন। বিয়ের আসর বসেছিল করাচিতে। বিয়ে সম্পন্ন হয় মুসলিম রীতি অনুসারে। বিয়ে পড়ানো হয় কাজীর সামনে। অনুষ্ঠানে শ্বশুর শাহিদ আফ্রিদি উপস্থিত ছিলেন জামাই শাহিনের সাথে। শুক্রবার পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম জমকালো অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন। সোশ্যাল মিডিয়াতে এই মুহূর্তে শাহিন-আনশার বিয়ের সেই ছবি ভাইরাল হয়েছে।

জামাই হিসাবে শাহিনকেই পেতে চেয়েছিলেন। পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক ও বর্তমান নির্বাচক প্রধান সেটা জনসমক্ষে জানিয়েছিলেন ২০১১ সালে। এরপর থেকে শাহিনের দ্বিতীয় ইনিংসের অপেক্ষায় ছিল ক্রিকেট দুনিয়া। শেষ পর্যন্ত শাহিন ও আনশা বিয়ে সেরে নিলেন। পাক দলের অন্যতম তারকার বিয়ে বলে চাঁদের হাট বসেছিল এই অনুষ্ঠানে। পাকিস্তান প্রিমিয়ার লিগের অন্যতম দল লাহোর কালান্দার সেই বিয়ের ভিডিও ও ছবি নিজেদের সোশ্যাল মিডিয়াতেও পোস্ট করেছে।

Shaheen Got Married With The Daughter Of 'Boom Boom Afridi', Babar Azam'S Pak Team Appeared !!
Shaheen Got Married With The Daughter Of ‘Boom Boom Afridi’, Babar Azam’S Pak Team Appeared !!

আনশা সেজে উঠেছিলেন ধূসর রঙের লেহেঙ্গা ও হালকা গোলাপি ওড়নায়। শাহিনকে দেখা যায় ধূসর রঙের শেরওয়ানিতে। বিয়ের পর পুরো বাবর আজমদের সাথে মেয়ে-জামাই ছবি তোলেন ‘বুম বুম আফ্রিদি’। ছবি পোস্ট করে বাবর নবদম্পতিকে শুভেচ্ছা জানান। এছাড়াও একটি ভিডিও সামনে এসেছে। সেখানে পাকিস্তান দলের অন্যতম সেরা সম্পদ শাহিনকে জড়িয়ে ধরে পাক অধিনায়ককে অভিনন্দন জানাতে দেখা যাচ্ছে। পাক তারকা সরফরাজ আহমেদ, শাদাব খান, নাশিম শাহ-সহ একাধিক তারকা উপস্থিত ছিলেন।

শাহিন ইতিমধ্যেই দেশের জার্সি গায়ে চাপিয়ে নজর কেড়েছেন। ৯৯ টি উইকেট নিয়েছেন ২৫ টি টেস্ট মিলে। ৩২ টি ওডিআই মিলে তার উইকেট সংখ্যা ৬২। অন্যদিকে ৪৭ টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ মিলে ৫৮ টি উইকেট রয়েছে শাহিনের ঝুলিতে। তবে গত বছর চোটের কারণে ২২ বছরের এই পেসার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনাল থেকে দলের বাইরে। দলে দ্রুত ফিট হয়ে ফিরতে শ্বশুর শাহিদের সাথেই ট্রেনিং চলছে। কারণ ইতিমধ্যেই শ্বশুরমশাই ব্যাট হাতে নেটে দেখা গিয়েছে। আর শাহিন বল করছেন। জামাইয়ের পেসে তুলে ৪৫ বছর বয়সেও তিনি শট মারছেন। এমন বন্ধুত্বের সম্পর্কই এবার আত্মীয়তায় বদলে গেল।