সূর্যের হলো অস্ত! ‘গোল্ডেন ডাক’-এর হ্যাটট্রিক করা SKY-এর পাশে অধিনায়ক রোহিত !!

তিনি টি-টোয়েন্টিতে বিশ্বসেরা ব্যাটার। তাকে আধুনিক ক্রিকেটে ‘মিস্টার ৩৬০ ডিগ্রি’ বলে মনে করেন অনেকেই। অথচ টিম ইন্ডিয়ার (Team India) একদিনের দলে সেই সূর্য কুমার যাদব (Surya Kumar Yadav) আদৌ থাকার যোগ্য কিনা সেটা নিয়ে বড় প্রশ্নচিহ্ন উঠেছে। কারণ সত্য সমাপ্ত একদিনের সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার (Australia) বিরুদ্ধে ‘স্কাই’ ‘গোল্ডেন ডাক’- এর হ্যাটট্রিক করেছেন। যদিও অধিনায়ক রোহিত শর্মা (Rohit Sharma) ও হেড কোচ রাহুল দ্রাবিড় (Rahul Dravid) অস্তাচলে যাওয়া সূর্যের পাশেই রয়েছে।

প্রথম দুটি একদিনের ম্যাচের মত শেষ ম্যাচেও ভারতীয় ক্রিকেটের ‘মিস্টার ৩৬০ ডিগ্রি’ ‘গোল্ডেন ডাক’ করে প্যাভেলিয়নে ফিরলেন। মিডিল অডারের রোহিত শর্মা, রাহুল দ্রাবিড়রা যাকে ঘিরে আকাশছোঁয়ার স্বপ্ন দেখেছেন, চলতি সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে সেই সূর্য চরম ব্যর্থ হয়েছেন। স্বাভাবিকভাবেই এই অযাচিত হ্যাটট্রিকের পর সূর্যের ওয়ানডে ক্যারিয়ার প্রশ্নের মুখে পড়তে চলেছে।

যদিও ম্যাচের শেষে রোহিত শর্মা সাংবাদিক বৈঠকে এসে বললেন, “এতটাও সমালোচনা করা উচিত নয় সূর্যকে নিয়ে। মাত্র তিনটে বল খেলেছে ও। মেনে নিতে হবে তিনটি ভালো বলে আউট হয়েছে। যদিও ওর আউট হওয়ার ধরণটা তৃতীয় ম্যাচে একেবারেই ভালো লাগেনি। সামনে এগিয়ে গিয়ে ওর খেলা উচিত ছিল। খুবই ভালো স্পিন খেলে সূর্য। সবাই সেটা গত দু’বছরে দেখেছি। ওকে সেই জন্যই পরে নামিয়েছিলাম যাতে শেষের দিকে ১৫-২০ ওভার খেলতে পারে। দুর্ভাগ্যবশত সিরিজে তিনটে বল খেলতে পেরেছে।”

তৃতীয় ম্যাচের আগে রাহুল তার পাশে দাঁড়িয়ে সাংবাদিক বৈঠকে এসে শাক দিয়ে মাছ ঢাকার চেষ্টা করেছিলেন। তিনি বলেছেন, “চিন্তিত নই সূর্য কে নিয়ে। ৫০ ওভারের ক্রিকেট শিখছে সূর্য। খানিকটা আলাদা টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট। দশ বছর ধরে ও আইপিএল খেলেছে। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট প্রচুর খেলেছে সেই জন্যেই ও টি-টোয়েন্টি ম্যাচের অত্যন্ত চাপ নিতে পারে। বিজয় হাজারে ট্রফি বাদ দিয়ে ঘরোয়া পর্যায়ে বা আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচে সেইরকম কোন চাপ থাকে না। যেহেতু সূর্য টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট প্রচুর পরিমাণে খেলেছে, সেহেতু ওয়ানডে ক্রিকেট ও সেভাবে খেলেনি। কিছুটা সময় ওকে দিতে হবে। ধৈর্য ধরে রাখতে হবে আমাদের। ভালো করছে ও। আমরা সেটা নিশ্চিত ভাবে দেখতে পারছি।”

আগের দুটি ম্যাচে সূর্য মিচেল স্টার্কের জোরালো ইনসুইংয়ের শিকার হয়েছিলেন। একইভাবে দুটি ম্যাচেই তিনি আউট হন। এদিন সম্ভবত সেই কারণের জন্যই নিজের প্রিয় ক্রিকেটারকে রোহিত শর্মা স্টার্কের সামনে ফেলতে চাইনি। ব্যাটিং য়ে চার নম্বরে সূর্য নামার কথা থাকলেও এদিন তাকে ছয় নম্বরে নামানো হয়। স্টার্ক সামনে ছিল না। কিন্তু তাতেও SKY-এর ভাগ্য বিশেষ কিছু বদলায়নি। এদিনও প্রথম বলেই তিনি আউট হন। বাঁহাতি স্পিনার অ্যাস্টন আগর আউট করেন। আসলে এখন সূর্য এতটাই আত্মবিশ্বাসের অভাবে ভুগছেন যে তিনি সোজা বলটিও ভালোভাবে খেলতে পারলেন না।

শুধু চলতি সিরিজ নয়, সব মিলিয়েই মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স তারকা বিশেষ কিছু করে উঠতে পারেননি নিজের ওয়ানডে ক্যারিয়ারে। এযাবৎকাল ২৩ টি ম্যাচ মিলে তার ৪৩৩ রান সংখ্যা। সব মিলিয়ে তিনি মাত্র দুইবার পঞ্চাশের বেশি রান করেছেন। যখন সঞ্জু স্যামসনের মতো প্রতিভাবান ক্রিকেটার বাইরে, তখন বারবার সূর্যকে সুযোগ দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। যদিও টিম ম্যানেজমেন্ট তার পাশে রয়েছে।