Rider 125 কলেজ যুবকদের প্রথম পছন্দ হয়ে উঠেছে, শক্তিশালী মাইলেজ এবং স্মার্ট বৈশিষ্ট্যের সাথে টক্কর দিচ্ছে পালসারকে

ফের নতুন চমক দিল TVS মোটর কোম্পানি। ভারতীয় টু-হুইলার মার্কেটের 125cc সেগমেন্টে নিজেদের শেয়ার বাড়াতে আগ্রাসী হয়ে উঠছে কোম্পানিটি । 125cc টু-হুইলার সেগমেন্টে কোম্পানিটি Ntorq 125-এর পরে Raider 125 বাইক বাজারে এনেছে। স্পোর্টি লুক এর জন্য Rider 125 ইতিমধ্যেই যুবকদের প্রথম পছন্দ হয়ে উঠেছে। একনজরে দেখে নেওয়া যাক কি কি বৈশিষ্ট্য রয়েছে এই গড়িটিতে।

Image 19, , Rider 125 কলেজ যুবকদের প্রথম পছন্দ হয়ে উঠেছে, শক্তিশালী মাইলেজ এবং স্মার্ট বৈশিষ্ট্যের সাথে টক্কর দিচ্ছে পালসারকে

১) স্টাইলিং — এই মোটরসাইকেলটি দেখতে Apache এর মতো । সামনের দিকে ক্রস-স্টাইলের LED DRL সহ কৌণিক অল-এলইডি হেডল্যাম্প রয়েছে । এর ফুয়েল ট্যাঙ্ক টিও আকারে বেশ বড় ।

Image 21, , Rider 125 কলেজ যুবকদের প্রথম পছন্দ হয়ে উঠেছে, শক্তিশালী মাইলেজ এবং স্মার্ট বৈশিষ্ট্যের সাথে টক্কর দিচ্ছে পালসারকে

২) বিশেষত্ব — TVS Raider 125 দুটি রাইডিং মোড ইকো এবং পাওয়ার মোড পেয়েছে। জ্বালানি বাঁচাতে এই প্রযুক্তিটি দেওয়া হয়েছে, যা যেকোনো লাল আলোতে বা মোটরসাইকেল কিছু সময়ের জন্য থামলে সঙ্গে সঙ্গে বাইক বন্ধ করে দেয়। আরোহী তার ইচ্ছেমত থ্রটল ঘুরিয়ে ইঞ্জিনটি আবার চালু করতে পারবেন। এছাড়া রেভ লিমিটার ইকো মোডে একটু তাড়াতাড়ি শুরু হয় যার ফলস্বরূপ টু-হুইলারটিকে ইকো মোডে সর্বোচ্চ প্রায় 94 কিমি/ ঘণ্টা এবং পাওয়ার মোডে 104 কিমি/ ঘণ্টার সর্বোচ্চ গতিতে চালানো যাবে।

Image 20, , Rider 125 কলেজ যুবকদের প্রথম পছন্দ হয়ে উঠেছে, শক্তিশালী মাইলেজ এবং স্মার্ট বৈশিষ্ট্যের সাথে টক্কর দিচ্ছে পালসারকে

ট্রিপ মিটার, খালি সূচকের দূরত্ব, নিষ্ক্রিয় শুরু/স্টপ সূচক এবং গড় গতির রেকর্ড। এছাড়া সাইড-স্ট্যান্ড কাট-অফ সুইচও নিরাপত্তা বৈশিষ্ট্য হিসেবে বাইকে দেওয়া হয়েছে । TVS SmartXonnect ব্লুটুথ ফাংশনও অফার করতে চলেছে যা শীর্ষ ভেরিয়েন্টে থাকবে। এতে কল ও এসএমএস অ্যালার্ট, নেভিগেশন, ডিজি লকারসহ অনেক অ্যাপ ভিত্তিক ফিচার হিসেবে দেখা যাবে।

৩) আরাম — রাইডার্স ট্রায়াঙ্গলে এর একটি খেলাধুলাপূর্ণ অবস্থান রয়েছে। হ্যান্ডেলবারটি দিয়ে যখন ফুটপেগগুলিকে কিছুটা পিছনে ঠেলে দেওয়া হয়,তখন এটি সত্যিই একটি আরামদায়ক অনুভূতি দেয়।
স্প্লিট সিট দেওয়া হয়েছে স্পোর্টি লুকের জন্য এবং সেগুলোও খুব আরামদায়ক। আসনটির উচ্চতা 780 মিমি, যার কারণে এমনকি 5 ফুট উচ্চতার লোকেরাও সহজেই এটি চালাতে পারে। হুইলবেস 1,326 মিমি এবং এটি 180 মিমি গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স পায়। ফুয়েল ট্যাঙ্কের কাছে একটি চার্জিং পয়েন্টও দেওয়া হয়েছে, যাতে রাইডাররা তাদের মোবাইল ফোন চার্জ করতে পারেন।