“বিশ্বকাপ নয়, নিজের সুস্থতা জরুরী” .. জাসপ্রিত বুমরাহকে নিয়ে রোহিত শর্মার বয়ানে জিতে নিল সকলের হৃদয় !!

অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত টি-২০ বিশ্বকাপ ২০২২ খেলতে ভারতীয় দল এই মুহূর্তে রয়েছেন ডন ব্যাডম্যানের দেশ অস্ট্রেলিয়ায়। সাউথ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত ২০০৭ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সাফল্য আবার একবার ফিরিয়ে আনতে দৃঢ়সংকল্প ” মেন ইন ব্লু”। ভারতের মাঠে অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে পর পর দু’টি টি টোয়েন্টি সিরিজ জিতে ফর্মেই রয়েছেন রোহিত, কোহলিরা। তবে ভারতীয় ক্রিকেট ভক্তদের চিন্তায় রাখবে প্রস্তুতি ম্যাচে পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ভারতীয় দলের হার। আবহাওয়ার সাথে দ্রুত নিজেদেরকে মানিয়ে নিয়ে ভারতীয় দল জয়ের পথে ফিরবে বলেই ভাবছেন বিশেষজ্ঞ’রা।

বুমরাহ’র অনুপস্থিতি প্রভাব ফেলবে

অস্ট্রেলিয়ার বাউন্স ও পেস সহায়ক উইকেটে ভারতীয় দলের পেস ব্যাটারি’র সেরা অস্ত্র জসপ্রিত বুমরাহ’র না থাকাটা দলকে অনেক ভোগাতে পারে। টি টোয়েন্টিতে ক্ষুরধার বোলিংয়ের জন্য বিখ্যাত ছিল জসপ্রিত বুমরাহ। পিঠে চোটের কারণে ২০২২ এর বিশ্বকাপের দল থেকে ছিটকে গিয়েছেন তিনি। আগামী ছয় মাস মাঠের বাইরেই থাকতে হতে পারে তাকে। মেলবোর্নের প্রেস কনফারেন্সে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে অধিনায়ক রোহিত শর্মা জানান ভারতীয় বোর্ড শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত চেষ্টা করেছে বুমরাহ’কে ফিট করে তোলার। কথা বলা হয়েছে অনেক বিশেষজ্ঞের সঙ্গে, কিন্তু কেউই বুমরাহ দলে ফেরার আশার বাণী শোনাতে পারেন নি।

বুমরাহ এই মহুর্তে নিজের উপর ফোকাস করা জরুরী

ভারতীয় দলের অধিনায়ক রোহিত শর্মা নিজে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে সোজাসাপটা জানিয়ে দিয়েছেন যে বুমরাহ দলের একটি মূল্যবান অ্যাসেট। বিশ্বকাপের জন্য দল তার কেরিয়ার নিয়ে কোনো রকম ঝুঁকি নিতে চায় না। বুমরাহ’র বয়স উল্লেখ করে হিট-ম্যান জানান যে,“… ওর(বুমরাহ’র) বয়স মাত্র ২৭-২৮। অনেক ক্রিকেট বেঁচে রয়েছে ওর মধ্যে। আরও অনেক বছর খেলবে ও, ভারতকে জেতাবে  আরো অনেক ম্যাচ।” তবে জসপ্রীতের অভাব বোধ করছে ভারতীয় দল তা বোলার অপেক্ষা রাখে না।

শামির উপস্থিতি ইতিবাচক

জাসপ্রিত বুমরাহের বদলি বোলার হিসেবে অস্ট্রেলিয়ায় ভারতীয় দলের সাথে গত সপ্তাহেই যোগ দিয়েছেন মহম্মদ শামি। তবে শামির ও সুযোগ পাওয়ার পথ মসৃণ হয়নি। কোভিডে কাবু হওয়ার পর শামি সুস্থ হয়ে জাতীয় দলে ফেরার জন্য একের পর এক ফিটনেস টেস্ট পাস করেছেন।তারপরেই অস্ট্রেলিয়াগামী বিমানের টিকিট কনফর্ম করেছেন পেসার। অসুস্থতার কারণের জন্য ভারতীয় দল বেশ কিছু সিরিজেও পায়নি তাদের এই অভিজ্ঞ পেসারকে। বুমরাহ’র না থাকাটা আর শামির ম্যাচ ফিটনেস নিয়ে চিন্তা থাকলেও তাতে আমল দেননি স্বয়ং ভারতীয় অধিনায়ক। রোহিত জানিয়েছেন শামিকে নিয়ে চিন্তার কোনো কারণ নেই। তিনি আরও বলেন যে, “দু-তিন সপ্তাহ আগে শামির কোভিড হয়ে থাকলেও সেসব কাটিয়ে উঠে জোরকদমে ১০ দিন অনুশীলন করেছে ও।বোলিং সেশনে ঘামও ঝড়িয়েছে নিয়মিত।চিন্তার কোনো কারণ নেই।”

শেষ প্রস্তুতিতে ভারত

বর্তমানে ভারতীয় দলে চোট নিয়ে অযথা কোনো আশঙ্কা নেই বলেই জানান অধিনায়ক। চোট-আঘাত খেলার অঙ্গ। এই সহজ সত্যিটা মেনে নিয়েই তিনি বলেছেন যে সকল বোলার’রা অস্ট্রেলিয়ায় এসেছে তাদের অভিজ্ঞতা যথেষ্ট পরিপক্ক। তাদের ওপর দলের পূর্ণ আস্থা রয়েছে। অস্ট্রেলিয়ায় পার্থের অনুশীলন শিবির শেষে ভারতীয় দলের পরবর্তী গন্তব্য ব্রিসবেন। সেখানে ১৭ ও ১৯ অক্টোবর দুটি প্রাকটিস ম্যাচে “মেন ইন ব্লু”-র প্রতিপক্ষ যথাক্রমে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড।

টি-২০ বিশ্বকাপের জন্য ভারতীয় দল

রোহিত শর্মা (অধিনায়ক), কেএল রাহুল, বিরাট কোহলি, সূর্যকুমার যাদব, দীপক হুডা, ঋষভ পন্থ, দীনেশ কার্তিক, হার্দিক পান্ডিয়া, রবিচন্দ্রণ অশ্বিন, যজুবেন্দ্র চাহল, অক্ষর প্যাটেল, ভুবনেশ্বর কুমার, হার্ষল প্যাটেল, অর্শদীপ সিং, মহম্মদ শামি। স্ট্যান্ডবাই-মহম্মদ সিরাজ, শ্রেয়স আইয়ার, রবি বিষ্ণোই, শার্দুল ঠাকুর।