লেটেস্ট খবরসাফল্যের খবর শিক্ষার খবরঅফবিটটেক নিউজ

India Post Office Scheme: পোস্ট অফিসের এই স্কিমে বিনিয়োগ করে ১০ বছরে হয়ে যান কোটিপতি! জানুন কীভাবে!

Published on:

WhatsApp Group   Join Now

India Post Office Scheme: বর্তমানে জনসাধারণের মধ্যে অন্যতম দুটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল টাকা উপার্জন করা এবং ভবিষ্যতের জন্য সেই উপার্জনের টাকা থেকেই যতটা সম্ভব কিছুটা সঞ্চয় করা। বর্তমান সময় বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন খাতে মানুষ তার টাকা সঞ্চয় করে রাখে কিন্তু সেই সঞ্চয় টাকা কতটা সুরক্ষিত সেটা নিয়ে মানুষের মধ্যে প্রশ্ন লেগেই থাকে। সঞ্চয়ের টাকা ব্যাংকে জমা না রেখে এমন একটি স্কিম রয়েছে যেখানে টাকা সঞ্চয় করে রাখলে কয়েক বছরের মধ্যে কোটিপতি হওয়া সম্ভব। সবচেয়ে বড় কথা হল এক্ষেত্রে টাকা থাকবে সুরক্ষিত।

India Post Office Scheme

ভারতীয় পোস্ট অফিসে টাকা ঝুকিহীন ভাবে বিনিয়োগ করে একসঙ্গে পাওয়া যেতে পারে কোটি টাকা। বর্তমানে বিভিন্ন বিনিয়োগকারী সংস্থাগুলির মধ্যে অন্যতম ঝুঁকিপূর্ণ এবং সুরক্ষিত সংস্থা হল ভারতীয় পোস্ট অফিস। পোস্ট অফিসের একটি স্কিমে টাকা বিনিয়োগ করে একসঙ্গে পাওয়া যেতে পারে প্রচুর রিটার্ন। তাহলে আর দেরি না করে পোস্ট অফিসের এই স্কিম সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

India Post Office Scheme

আরও পড়ুন:Axis Bank Recruitment 2024: Axis ব্যাঙ্কের প্রতিটি ব্রাঞ্চে কর্মী নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি! বেতন ২০ হাজার! জানুন আবেদন পদ্ধতি

পোস্ট অফিস রেকারিং ডিপোজিট স্কিমের মাধ্যমে পোস্ট অফিসে টাকা রেখে এককালীন প্রচুর টাকা রিটার্ন পাওয়া যায়। এই স্কিমের মাধ্যমে টাকা বিনিয়োগ করলে ১০ বছরে কোটিপতি হওয়া সম্ভব। এই স্কিমে পাঁচ বছরের জন্য অ্যাকাউন্ট খুললেই সেই একাউন্টে প্রতিবছর ৬.৭ শতাংশ হারে সুদ দেওয়া হয়ে থাকে। আর সব থেকে বড় কথা হলো এক্ষেত্রে ত্রৈমাসিক চক্রবৃদ্ধি হারে সুদ দেওয়া হয়ে থাকে। পোস্ট অফিসের রেকারিং ডিপোজিট স্কিমের মাধ্যমে নূন্যতম ১০০ টাকা থেকে ডিপোজিট করা যায় এবং সর্বাধিক কোন সীমা এক্ষেত্রে ধার্য করা হয়নি। রেকারিং ডিপোজিট স্কিমের ম্যাচুরিটির সময়কাল পাঁচ বছর হলেও পরবর্তীতে সময়কাল আরো বৃদ্ধি করতে পারা যায়।

India Post Office Scheme

এই স্কিমের ন্যূনতম বিনিয়োগ ১০০ টাকা থেকে শুরু হলেও এক্ষেত্রে ইচ্ছামতো আরো বেশি টাকা বিনিয়োগ করতে পারা যায়। এক্ষেত্রে রিটার্ন নির্ভর করে কত টাকা বিনিয়োগ করা হচ্ছে। বেশি টাকা বিনিয়োগ করলে এক্ষেত্রে কোটি টাকা পর্যন্ত রিটার্ন পাওয়া সম্ভব। তবে সম্পূর্ণটাই নির্ভর করবে বিনিয়োগের উপর। যদি প্রতিমাসের ৬০ হাজার টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ করা হয় তাহলে দশ বছরে মোট বিনিয়োগ হবে ৭২ লক্ষ টাকা। আর সুদ পাওয়া যাবে ৩০.৫১ লক্ষ টাকা। সব মিলিয়ে মোট ১.০২ কোটি টাকা ১০ বছর পর রিটার্ন পাওয়ার সম্ভবনা রয়েছে।

About Author
Dikshita Gain

বিগত প্রায় ২ বছর ডিজিটাল মিডিয়ার কাজের সঙ্গে যুক্ত। যে কোনো ধরনের জেনারেল নিউজ লেখায় পারদর্শী।