‘কোহলিকে সরাতে চাইনি, আমাদের খেলার পুতুল করে রাখা হতো’, দায়িত্ব হারানোর পর বোর্ডের দিকে আঙ্গুল তুললেন চেতন শর্মা !!

ভারতীয় ক্রিকেট শিবিরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের ব্যর্থতার পর নানান জল্পনা-কল্পনা দেখা দিয়েছে। প্রশ্ন উঠেছে অধিনায়ক থেকে শুরু করে টিম ম্যানেজমেন্ট ও নির্বাচন কমিটি নিয়ে। আজ থেকে ৯-১০ আগের ভারতীয় শিবির এবং বহু পরিবর্তনে এসেছে সাম্প্রতিক সময়ে ভারতীয় শিবিরে। সম্প্রতি সরিয়ে দেওয়া হয়েছে নির্বাচন কমিটির এক কর্মকর্তা চেতন শর্মাকে। তবে কি কারণে তাকে সরানো হয়েছে? ব্যর্থ বিশ্বকাপের দল নির্বাচনে? একাধিক ভুল সিদ্ধান্ত? এইসব নিয়ে নানান জল্পনা হচ্ছে। পদ থেকে সরানোর পর তিনি এবার সব জল্পনা ফাঁস করলেন। আসুন জেনে নেওয়া যাক তিনি কি বললেন।

আসলে পদ থেকে তাকে সরানোর পর আঙুল তুলেছেন বিসিসিআইয়ের দিকেই। তিনি অভিযোগ করেন, “আমরা স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারিনি, আমাদের খেলার পুতুল করে রাখা হয়েছিল। কিন্তু ব্যর্থতার দায় সবার উপরেই ছাপানো হচ্ছে।”

সংবাদমাধ্যম ইনসাইড স্পোর্টস ও স্কাইএক্সচ জানিয়েছেন, তাদের কাছে এক নির্বাচক বেশ কিছু তথ্য দিয়েছে। ওই নির্বাচক নাম না করে বলেছেন, “বোর্ড আমাদের জেনেশুনে চলন্ত বাসের নিচে ঠেলে দিচ্ছে। ওদেরও উচিত ছিল ব্যর্থতার দায় নেওয়া। অধিনায়ক বদলের সিদ্ধান্ত আমাদের একার ছিল না। বোর্ড নির্বাচন বৈঠকে অনেকবার হস্তক্ষেপ করা হয়েছে। কিন্তু এখন আমরাই দোষারোপ। এখন আমাদের বলা হচ্ছে, ৯ মাসে কেন ৮ বার নেতৃত্ব পরিবর্তন করা হলো।”

বোর্ডের কে বা কারা তাদের চাপের মধ্যে রাখত তা প্রকাশ করেনি। তিনি আরও বললেন, “নাম নেব না, কিন্তু তিন ফর্মাটেই অধিনায়ক পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত আমাদের একাদের ছিল না। আমাদের মধ্যে কয়েকজন চেয়েছিলাম বিরাট কোহলি (Virat Kohli) ২০২৩ সাল পর্যন্ত অধিনায়ক করুক। কিন্তু টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে থেকেও সরানো হয়েছিল। কারণ BCCI তিন ফরম্যাটে আলাদা আলাদা অধিনায়ক রাখতে রাজি ছিলেন না। যা এর আগেও কোনোদিন হইনি।”


তিনি আরও বললেন, “নেতৃত্ব বদলের সময় দেখা গিয়েছে বহু রদবদল। এদিকে রোহিতের বয়স পৌঁছেছে ৩৫ এ। তার ক্ষেত্রে তিন ফরম্যাটেই নেতৃত্ব দেয়া কঠিন হয়ে দাঁড়াবে। তাই আমরা রাহুলকে অধিনায়ক করার কথা ভেবেছিলাম। কিন্তু সেই সময় রাহুল চোট পেয়ে দীর্ঘদিনের জন্য বিশ্রামে যায়। তাই অধিনায়কে এমন পরিবর্তন। এখন সব দোষ টাই আমাদের ঘাড়ে চাপছে।” এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ভারতীয় বোর্ড এখনো কিছু জানায়নি।

ইতিমধ্যেই নয়ন মোঙ্গিয়া, সলিল আঙ্কোলা ও লক্ষণ শিবরামকৃষ্ণন এই তিন কিংবদন্তি চেতন শর্মার পরিবর্তে বোর্ডে আবেদনপত্র জমা দিয়েছে কাজ করার জন্য। ধারণা আরও আবেদন পত্র জমা পড়বে বলে। ২৮ শে নভেম্বর আবেদন পত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ। তারপর বোর্ড নতুন কমিটি ঘোষণা করবে(Indian Cricket Board)।