লেটেস্ট খবরসাফল্যের খবর শিক্ষার খবরঅফবিটটেক নিউজ

ওর কোনও খুঁত নেই- ভারত হারলেও সূর্যতে মুগ্ধ প্রাক্তন দক্ষিণ আফ্রিকান অধিনায়ক

WhatsApp Group   Join Now রবিবার দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার-টুয়েলভ রাউন্ডে ৫ উইকেটে ভারত পরাজিত হয়েছে। এক সময়ে ৪৯ রানে ভারতীয় ...

Published on:

WhatsApp Group   Join Now

রবিবার দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার-টুয়েলভ রাউন্ডে ৫ উইকেটে ভারত পরাজিত হয়েছে। এক সময়ে ৪৯ রানে ভারতীয় দল পার্থে ৫ উইকেট হারিয়ে বসেছিল। সূর্য কুমার যাদব (৬৮)এরপর একা দায়িত্ব নিয়ে মোকাবিলা করেন প্রোটিয়া বোলারদের এবং ১৩৩/৯ এর সম্মানজনক স্কোরে দলকে নিয়ে যান।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সূর্য কুমার যাদব মাত্র ৪০ বলে ৬টি চার ও ৩টি ছক্কার মাধ্যমে করেন ৬৮ রান। সূর্যের পারফরম্যান্সে উচ্ছ্বাসিত হয়েছেন নিউজিল্যান্ডের প্রাক্তন অধিনায়ক এবং চেন্নাই সুপার কিংস এর প্রধান কোচ স্টিফেন ফ্লেমিং। তিনি ইএসপিএন ক্রিকইনফো-তে বলেছেন যে, এমন পর্যায়ে সূর্য কুমার যাদবের টি-টোয়েন্টির পারফরম্যান্স আছে সেখানে কোন ত্রুটি তার খেলায় খুঁজে পাওয়া কঠিন।

Sky2, , ওর কোনও খুঁত নেই- ভারত হারলেও সূর্যতে মুগ্ধ প্রাক্তন দক্ষিণ আফ্রিকান অধিনায়ক

ফ্লেমিং বলেছেন, ‘সূর্যকুমার যাদবের খুব ইতিবাচক মানসিকতা রয়েছে। ও এখন হাত খুলে খেলছে এবং আক্রমণাত্মক মেজাজে রয়েছে। এবং যে কোনও শট, যে কোনও জায়গা দিয়ে ও খেলে দিচ্ছে। সূর্য এমন একটি কৌশল তৈরি করেছে যা বোলারদের জন্য সঠিক লেন্থ খুঁজে পাওয়া কঠিন হচ্ছে। কারণ বোলাররা যদি একটি পূর্ণ দৈর্ঘ্যের বল করে, তবে শটটি কভারের উপর দিয়ে যাবে এবং আবার যদি শর্ট বল করে, তবে বলটি কভারের উপর দিয়ে চলে যাবে। থার্ড ম্যান বা পয়েন্ট। ও সোজা শট খেলে। শর্ট বলটা ভালোই মারে। তাই ও এমন একটি কৌশল উদ্ভাবন করেছে যে ওর দুর্বলতার জায়গা খুঁজে পাওয়া খুব কঠিন।’

এখানেই থামেননি। দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন অধিনায়ক ফ্যাফ ডু’প্লেসি বলেছেন যে, সূর্যকুমার যাদবের গুণ হল, তিনি জানেন কখন ঝুঁকি নিতে হবে। প্রাক্তন প্রোটিয়া অধিনায়ক বলেছে, ‘সুর্যকুমার যাদব এমনই স্টাইলে খেলে যে, একজন বোলার হিসাবে আপনি বুঝতেই পারবেন না, কোন জায়গায় ফাঁর খুঁজে ওর উপর আধিপত্য বিস্তার করা যায়। ও বিভিন্ন ধরনের শট খেলে। সব এলাকায় রান স্কোর করে।’

Sky1, , ওর কোনও খুঁত নেই- ভারত হারলেও সূর্যতে মুগ্ধ প্রাক্তন দক্ষিণ আফ্রিকান অধিনায়ক

ডু’প্লেসিস আরো বললেন, ‘ও দুরন্ত কম্পোজার। ওর এত শট আছে, কিন্তু আমি ওকে তাড়াহুড়ো করতে দেখিনি। ওর মধ্যে একটা প্রশান্তি আছে, যার সাহায্যে ও অনেক রান করছে। ও জানে কখন রানের গতি বাড়াতে হবে। সেই অনুযায়ী ও এগিয়ে যায় এবং সব সময়ে ঠাণ্ডা মাথায় খেলে। ও একজন দুর্দান্ত টি-টোয়েন্টি প্লেয়ার। তরুণরা ওর কাছ থেকে শিখতে পারে, কী ভাবে খেলার বিভিন্ন পর্যায়ে নিজের ইনিংসকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হয়।’

About Author