ব্যাক টু ব্যাক ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে টি-20 সিরিজ দখল করলো ইংল্যান্ড

২০২২ এ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে অস্ট্রেলিয়া আয়োজিত অস্ট্রেলিয়া বনাম ইংল্যান্ডের তিনটি টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটি ক্যানবেরার মানুকা ওভালে খেলা হয়। এই ম্যাচে ইংল্যান্ড অস্ট্রেলিয়াকে আট রানে হারিয়েছে।তিনটি ম্যাচের এই সিরিজে ইংলিশ দল ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে। ইংল্যান্ডের করা ১৭৯ রানের লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে গিয়ে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে টিম ডেভিড মাত্র ২৩ বলে ৪০ রান ও মিচেল মার্শ ২৯ বলে ৪৫ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেও দলকে জেতাতে পারেননি।

ইংল্যান্ডের হয়ে এই ম্যাচে ডেভিড মালান একটি ঝড়ো ইনিংস খেলেন যাতে তিনি ৪৯ বলে ৭ চার ও ৪ ছক্কার সাহায্যে ৮২ রান করেন। একই সঙ্গে বোলিংয়ে দুর্দান্ত পারফর্ম করেন স্যাম কারেন। তিনি তার চার ওভার বল করে ২৫ রান খরচ করে নেন ৩ উইকেট। এই দুজনের দুর্দান্ত খেলার সামনে অস্ট্রেলিয়া দলকে সম্পূর্ণ অসহায় দেখায় এবং তারা এই ম্যাচে হেরে যেতে বাধ্য হয়।

টিম ডেভিডের দুর্দান্ত ইনিংস- ১৭৯ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে অস্ট্রেলিয়া দলের শুরুটা ভালো হয়নি এবং দলের ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ১১ বলে ৪ রান ও অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ ১৩ বলে ১৩ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান। একই সময়ে, মিচেল মার্শ অস্ট্রেলিয়ান ইনিংস সামলানোর চেষ্টা করেছিলেন, কিন্তু তাকে সমর্থন করতে আসা গ্লেন ম্যাক্সওয়েল খুব বেশি কিছু করতে পারেননি এবং ১১ বলে ৮ রান করে প্যার্ভিলিয়নে ফিরে যান। ম্যাক্সওয়েলের পরে, মার্কাস স্টয়নিস দ্রুত ব্যাট করার চেষ্টা করেন এবং ১৩ বলে ২২ রান করেন, কিন্তু স্যাম কারেন তাকে প্যাভিলিয়নে ফেরৎ পাঠান।

সতর্কতার সাথে ব্যাট হাতে দ্রুত রান করা মিচেল মার্শও ২৯ বলে ৪৫ রান করে বেন স্টোকসের বলে আউট হন। মার্শের আউটের পর অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস বিপদে পড়ে। কিন্তু তরুণ ব্যাটসম্যান টিম ডেভিড পাঁচটি ৪ ও একটি ৬ সাহায্যে বিস্ফোরক ব্যাটিং করে ২৩ বলে ৪০ রান করেন। তবে ৪০ রানে স্যাম কারেনের তৃতীয় শিকার হন তিনি। ক্যাঙ্গারু দল এই ম্যাচে ৮ রানে হেরে যায়।এই ম্যাচে জেতার পর তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতে নিয়েছে ইংল্যান্ড।