লেটেস্ট খবরসাফল্যের খবর শিক্ষার খবরঅফবিটটেক নিউজ

Bhagyalakshmi Scheme: নারীজাতির জন্য নতুন প্রকল্প! এইবার মেয়েরা পাবে ২ লক্ষ টাকা! দেখে নিন আবেদন পদ্ধতি

Published on:

WhatsApp Group   Join Now

Bhagyalakshmi Scheme: সরকারের তরফ থেকে বিভিন্ন সময় ছোট থেকে শুরু করে বৃদ্ধদের জন্য ভিন্ন ভিন্ন প্রকল্পের সহায়তা পেয়েছে জনসাধারণ। এবার চালু হল একটি নতুন প্রকল্প যার সাহায্যে মোট ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত আর্থিক সহায়তা ঘোষণা করল সরকার । কন্যার জন্মের পর পিতামাতাকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করবে সরকার। কন্যাদের পড়াশোনা শেষ করার জন্যও আর্থিক সাহায্য দেওয়া হবে এই উদ্দেশ্যেই চালু করা হয়েছে সরকারের নতুন প্রকল্প যার নাম দেওয়া হয়েছে ভাগ্যলক্ষ্মী যোজন।

Bhagyalakshmi Scheme

এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য একটাই মেয়েদের শিক্ষা যাতে কোনভাবেই পিছিয়ে না থাকে। সমাজে যতই নারী জাতির উন্নতির কথা বলা হোক না কেন কিন্তু প্রদীপের নিচে অন্ধকার যেমন থাকে তেমন সমাজের নারীদের উন্নতির কথা বলা হলেও অবস্থাও কিন্তু এখনো বেহাল। এখনো পর্যন্ত সমাজের নানা স্থানে নারী জাতিদের শিক্ষার দিক থেকে পিছিয়ে পড়তে দেখা যায়। সেই কারণেই এই প্রকল্পের সূচনা। কন্যা সন্তানের জন্মের সময় ৫০ হাজার টাকার বন্ড প্রদান করবে সরকার, তারপরে কন্যার বয়স ২১ বছর পূর্ণ হলে এই বন্ডটি ২ লাখ টাকার যোগ্য হয়ে যাবে এবং কন্যা সন্তানের জন্মদানকারী মা ৫১০০০টাকা পাবেন। ওই কন্যা সন্তান যখন বিভিন্ন ক্লাসে ভর্তি হয়, তখন নিম্নলিখিত উপায়ে তাকে আর্থিক সাহায্য দেওয়া হয়-
ষষ্ঠ শ্রেণীতে প্রাপ্ত পরিমাণ – ৩০০০ টাকা
অষ্টম শ্রেণীতে দেওয়া পরিমাণ – ৫০০০ টাকা
দশম শ্রেণীতে – ৭০০০ টাকা

কারা এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন ?

Bhagyalakshmi Scheme

1) এই প্রকল্পের আওতায় একটি পরিবারের মাত্র দুই মেয়েকে সুবিধা দেওয়া হবে।

2) ভাগ্যলক্ষ্মী যোজনার অধীনে অংশগ্রহণকারী পরিবারের মাসিক আয় ২০০০০ টাকার কম হতে হবে।

আরও পড়ুন:SBI Recruitment 2024: SBI ব্যাঙ্কে কর্মী নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি; অনলাইনে করুন আবেদন! জানুন বিস্তারিত

3) এই স্কিমের অধীনে, আবেদনকারীদের মেয়ের জন্মের ৬ মাসের মধ্যে এই স্কিমের সুবিধাগুলির জন্য আবেদন করতে হবে।

4) এই স্কিমের মাধ্যমে সুবিধা গ্রহণকারী পিতামাতাদের কাছে মেয়ের বার্থ সার্টফিকেট এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ নথি থাকতে হবে।

(5) উত্তর প্রদেশ রাজ্যের বাসিন্দাদের জন্য এই প্রকল্প চালু করা হয়েছে তাই আবেদনকারীকে অবশ্যই উত্তর প্রদেশ রাজ্যের বাসিন্দা হতে হবে।

ভাগ্যলক্ষ্মী যোজনায় আবেদন পদ্ধতি : গুরুত্বপূর্ণ নথি হিসেবে পিতামাতার আধার কার্ড,
মেয়ের আধার কার্ড, মেয়ের বার্থ সার্টফিকেট, পিতামাতার বসবাসের শংসাপত্র, পিতামাতার আয়ের শংসাপত্র, পিতামাতার জাত শংসাপত্র,
পিতামাতার চাকরির শংসাপত্র, কন্যার নামে ব্যাংক অ্যাকাউন্টের বিবরণ ইত্যাদি।

Bhagyalakshmi Scheme

প্রথমে অভিভাবকদের ভাগ্যলক্ষ্মী যোজনার অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে। অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের হোম পেজে, অভিভাবকদের নিউ রেজিস্ট্রেশন বিকল্পে ক্লিক করতে হবে। এরপর ভাগ্য লক্ষ্মী যোজনা আবেদনপত্রটি পূরণ করতে হবে এবং প্রয়োজনীয় নথিগুলি স্ক্যান করে আপলোড করে সাবমিট বাটনে ক্লিক করতে হবে। সাবমিট বোতামে ক্লিক করার সঙ্গে সঙ্গেই, তাঁরা ভাগ্যলক্ষ্মী যোজনার অধীনে আবেদন প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ করবেন।

About Author
Dikshita Gain

বিগত প্রায় ২ বছর ডিজিটাল মিডিয়ার কাজের সঙ্গে যুক্ত। যে কোনো ধরনের জেনারেল নিউজ লেখায় পারদর্শী।