পাওয়া গেল সবচেয়ে বড় সাপের জীবাশ্ম! হতবাক বিজ্ঞানীরা

সোশ্যাল মিডিয়ায় অন্যতম বিষয়বস্তু এখন একাধিক ভাইরাল ছবি ও ভিডিও। প্রতিদিন হাজার হাজার ছবি ও ভিডিও ভাইরাল হচ্ছে। যেখানে মানুষের পাশাপাশি বাদ নেই পশু-পাখি, গাছপালার হরেক রকম ভিডিও। যাই হোক, সম্প্রতি কতগুলি ভিন্ন ধরনের আকৃতির গাছের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। যা দেখে অবাক হয়ে গিয়েছেন সকলে।

আমরা সেই গাছের ছবিগুলি আপনাদের সামনে তুলে ধরেছিলাম। এবার নিয়ে এলাম একটি সাপের আদলে তৈরি পাথরের ছবি। যা দেখে মনে হবে, পাথরটি আস্তো সাপ। হ্যাঁ, থাইল্যান্ডের বুয়েংকান প্রদেশের বুয়েং খং জেলার নাকা গুহাগুলির মধ্যে একটি পাথর ঠিক সর্পাকৃতির মতো দেখতে।

Image 84, , পাওয়া গেল সবচেয়ে বড় সাপের জীবাশ্ম! হতবাক বিজ্ঞানীরা

পাথরের গা সাপের খোলসের মতো এবং দেখে মনে হচ্ছে পাথরকা এঁকে বেঁকে হয়েছে। এবং পাথরের মুখটি দেখতে হুবহু সাপের মুখের মতো। এই ছবিগুলোর এই মুহূর্তে যে সামাজিক নেটওয়ার্কগুলিতে রীতিমতো তোলপাড় ফেলে দিয়েছে। Ord Tahanawapiij নামে একজন Facebook ব্যবহারকারী, সম্প্রতি এই নাকা গুহার একটি ছবি পোস্ট করেছেন, যেটির একটি পাথুর হুবহু সাপের মতো দেখতে। থাইল্যান্ডের এই বিরল গুহায় বিশালাকার সাপ পেট্রিফাইড রেপটাইল পাওয়া যায়। জানা যায়, এই গুহা ভীষণই রহস্যময়। সেখানে একটি বিশালাকার সাপ কয়েক মিলিয়ন বছর ক্ষুধার্ত হয়েছিল। এরপরই সে মারা যায়।

Image 82, , পাওয়া গেল সবচেয়ে বড় সাপের জীবাশ্ম! হতবাক বিজ্ঞানীরা

কেউ কেউ মনে করছেন এই পাথর টি সেই সাপের ধ্বংসাবশেষ। এছাড়াও একটি রাজা ইয়ু লুয়ের গল্প অনুসারে, একজন অভিশপ্ত রাজা যিনি শহরটিকে একটি হ্রদে পতিত করেছিলেন। সাম্প্রতিক থাইল্যান্ডের এই গুহায় বিশাল জীবাশ্মযুক্ত সাপের আবিষ্কার গবেষকদের অবাক করে দিয়েছে।

Image 83, , পাওয়া গেল সবচেয়ে বড় সাপের জীবাশ্ম! হতবাক বিজ্ঞানীরা

প্রায় ২৬ ফুট দৈর্ঘ্যের এই জীবাশ্মটি প্রায় ৭০ মিলিয়ন বছর পুরানো বলে মনে করা হয়েছে।খনিজ সম্পদ বিভাগের গবেষকদের একটি দল থাইল্যান্ডের কাঞ্চনাবুরি প্রদেশের একটি চুনাপাথরের গুহায় সাপের জীবাশ্মটি খুঁজে পেয়েছে। গবেষকদের মতে, সাপটির ওজন প্রায় 1,500 পাউন্ড হবে। সাপটি বড় শিকারকে পুরোটা গিলে ফেলতে সক্ষম হত।