‘সামান্য বল টেম্পারিং! দোষের তুলনায় যথেষ্ট শাস্তি পেয়েছে ওয়ার্নার’, নেতৃত্বে প্রতাবর্তনের দাবি জানিয়ে অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তী ম্যাকগ্রা !!

বিগত বছর দুয়েক আগের ঘটনা, দুই অস্ট্রেলিয়ান তারকা ডেভিড ওয়ার্নার ও স্টিভ স্মিথ কেপটাউন টেস্টে বল টেম্পারিং কাণ্ডে জড়িয়ে ছিলেন। সেই সময় স্টিভ স্মিথ দলের অধিনায়ক ছিলেন এবং ডেভিড ওয়ার্নার সহ অধিনায়ক ছিলেন। এই দুই তারকাকে এমন কাণ্ডে জর্জরিতার কারণে এক বছরের জন্য নিষেধাজ্ঞা করা হয়েছিল।

স্মিথ এই নিষেধাজ্ঞা শেষ হলে নেতৃত্বে ফিরলেও এখনো পর্যন্ত নেতৃত্ব থেকে দূরে সরে রয়েছেন ওয়ার্নার। টেস্টে স্মিথ প্যাট কামিন্সের সহযোগিতায় আছেন, এমনকি ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক হিসাবে তিনি নেতৃত্ব দিয়েছেন একটি ম্যাচে। অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ড অস্ট্রেলিয়ার ওপেনার তারকা ওয়ার্নারকে নিয়ে ভাবছেই না। এবার অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি গ্লেন ম্যাকগ্রা জোর দাবি জানালেন ওয়ার্নারকে নেতৃত্বে ফিরিয়ে আনার জন্য।

অ্যারন ফিঞ্চ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার পর ওয়ানডের দায়িত্ব পেয়েছেন প্যাট কামিন্স। তবুও ওয়ার্নারকে নিয়ে ভাবা হয়নি। এদিকে বারবার অস্ট্রেলিয়ার ওপেনার জানিয়েছে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়াকে নেতৃত্ব দিতে কোন অসুবিধা নেই তার। এইভাবে আশাহত হওয়ার পরেও তার ভক্তরা হতাশ ওয়ার্নার মূল্যায়ন না পাওয়াতে।

এবার ওয়ার্নারের হয়ে মুখ খুললেন অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি গ্লেন ম্যাকগ্রা।ম্যাকগ্ৰার মতে,“যে শাস্তি ওয়ার্নারের পাওয়ার কথা ছিল বোর্ড থেকে তার প্রাপ্য শাস্তি পেয়েছেন, তাই আগের কান্ড ধরে রেখে এখন কোন মানে নেই তাকে নেতৃত্ব থেকে দূরে রাখার।” তিনি ওয়ার্নারকে আবারও দলের নেতৃত্বে দেখতে চাইছেন আগের ঘটনা ভুলে গিয়ে।

এ ছাড়া তিনি আরো বললেন, “সামান্য বল টেম্পারিং কাণ্ডে স্মিথ ও ওয়ার্নারের এমন শাস্তি একটু বেশি হয়ে গিয়েছে। তিনি বললেন এবার অধিনায়কের দরজা ওয়ার্নারের জন্য উন্মুক্ত করা উচিত।” ম্যাকগ্ৰার মতে, ভুলের মাশুল গুনছে তারা, দোষের তুলনায় একটু বেশি শাস্তি পেয়েছে। তাই দলে অধিনায়ক হিসেবে সমর্থকদের একাংশ ওয়ার্নারের মতো একজন অভিজ্ঞ ক্রিকেটারকে প্রত্যাবর্তন করতে চাইছেন।